1. admin@ajkernews24bd.com : ajkernews24bd.com :
মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৫:০৪ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
আগামী ১৪-২১ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপন জারি। ঢাকা সহ সারাদেশে সরকারি বিধিনিষেধ অমান্য করেই চলছে বাস সহ নানা যানবাহন। ঢাকা সহ সারাদেশে সরকারি বিধিনিষেধ অমান্য করেই চলছে বাস সহ নানা যানবাহন। মামুনুল হকসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা। আরাফাত রহমান কোকো স্মৃতি সংসদ শরীয়তপুর জেলার কমিটি গঠন। দেশের জনগণের নিরাপত্তা, মাদক ও দুর্নিতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নিশ্চিতে যা করার করুন: এনএসআইকে প্রধানমন্ত্রী লকডাউনে শিল্প কারখানা ছাড়াও খোলা থাকবে যেসব প্রতিষ্ঠান। ৫ এপ্রিল থেকে সারাদেশে লকডাউনঃ-ওবায়দুল কাদের। উন্নত চিকিৎসার জন্য শরীয়তপুরের সাবেক মেয়র রফিকুল ইসলাম কোতোয়াল ভারতে, দোয়া চেয়েছেন সকলের কাছে। আবারও করোনায় ৪৫ জনের মৃত্যু, রেকর্ড সংক্রমণ

আওয়ামীলীগ কে শত অপমান,হামলা,মামলাকারী ও দলীয় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে যাওয়া বিদ্রোহী প্রার্থী আবুল বাশার চোকদারের সাথে এমপি নাহিম রাজ্জাকের ফুলের শুভেচ্ছা বিনিময়।

নাহিদুল ইসলাম নিরব ভেদরগঞ্জ শরীয়তপুর।
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৬২৯ বার পড়া হয়েছে

শরীয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ পৌরসভার তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে নৌকার বিদ্রোহী মেয়র পদপ্রার্থী ও ভেদরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের অর্থ বিষয়ক-সম্পাদক পদ থেকে বহিষ্কৃত আবুল বাশার চোকদার গত রবিবার শরীয়তপুর ৩ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য জননেতা জনাব আলহাজ্ব নাহিম রাজ্জাক এম পি মহোদয় এর সাথে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন।

গত ৩০শে জানুয়ারী ভেদরগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নৌকার মনোনীত প্রার্থী সাবেক মেয়র হাজী আব্দুল মান্নান হাওলাদার এর বিপরীতে আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত ও বিদ্রোহী প্রার্থী আবুল বাশার চোকদার মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন।এতে বিদ্রোহী প্রার্থী আবুল বাশার চোকদার ও ভেদরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের মুখোশধারী কিছু সংখ্যক নেতাদের সঙ্গে নিয়ে  টাকার বিনিময়ে ভোট ক্রয় করে বিজয়ী হন।এমনটাই অভিযোগ ভেদরগঞ্জ পৌর বসির।

গত ২২শে ফেব্রুয়ারী রোজ সোমবার ঢাকা বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে ভেদরগঞ্জ পৌরসভার নব-নির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলর বৃন্দ সহ সকলেই শপথ বাক্য পাঠ করেন। অতঃপর ঐ শপথ গ্রহণ শেষ করে শরীয়তপুর ৩ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য জননেতা জনাব নাহিম রাজ্জাক এমপি মহোদয়ের সঙ্গে তাহার নিজ বাসভব বনানীতে ফুলদিয়ে শুভেচ্ছা জানায়।

এতে ভেদরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের মধ্যে নানান কথা, আলোচনা, ও সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে।

জাতীয় বীর ও সাবেক গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় পানিসম্পদ মন্ত্রী মরহুম জননেতা জনাব আব্দুর রাজ্জাক সাহেবের রাজনৈতিক জীবন শুরু হয় ছাত্ররাজনীতির মধ্য দিয়ে।

তিনি ১৯৬০-৬২ সালে পূর্ব পাকিস্তান ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ছিলেন। ১৯৬২-৬৩ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক হল ছাত্র-ছাত্রী সংসদের নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্ব্বিতায় সহ-সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। তিনি ১৯৭০ সালের নির্বাচনে প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৬৩-৬৫ সাল পর্যন্ত তিনি ছাত্রলীগের সহঃ-সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। এই সময়ই তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক হলের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ১৯৬৫ থেকে ১৯৬৭ সাল পর্যন্ত তিনি পর পর দুই বার ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ১৯৬৯ থেকে ’৭২ সাল পর্যন্ত তিনি আওয়ামী লীগের স্বেচ্ছাসেবক বিভাগের প্রধান ছিলেন।

আব্দুর রাজ্জাক তার প্রানের দল ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের গঠিত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ দলটির সাথে কথনোই বেইমানি করেননি, এবং যারা করেছে তাদের সাথেও কখনো কোন প্রকার আপোষ করেননি।এমটাই দাবী স্থানীয় নেতাদের।

প্রয়াত নেতা মরহুম আব্দুর রাজ্জাক সাহেব সাংগঠনিক কাজে সবসময় নিয়মনীতির মধ্য দিয়ে দল পরিচালনা করতেন। আওয়ামী লীগের অনেক বিশ্বাসঘাতক ও বিদ্রোহী নেতাদের দল থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার সহ গঠনতন্ত্র অনুযায়ী যথাযথ ব্যাবস্থা নিয়েছিলেন। আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে তার অবদান  ছিলো অপরিসীম। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ছিলো তার আরেকটি জীবন, তিনি আওয়ামী লীগ কে তার প্রানের থেকেও বেশি ভালোবেসেছেন এবং দল পরিচালনার জন্য কোন অপরাধীকে কখনো এক বিন্দু পরিমানও ছারদেননি।

তাই আজ ভেদরগঞ্জ পৌর বসির মনে একটাই প্রশ্ন কেন পূনরায় আওয়ামী লীগের শত্রুদের সাথে আপোষ বা ফুলের শুভেচ্ছা??  বিদ্রোহী প্রার্থী ও আওয়ামী লীগের বিশ্বাসঘাতকেরা কিভাবে মাননীয় সংসদ সদস্য জনাব নাহিম রাজ্জাক এমপি মহোদয়ের সাথে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন এটাই প্রশ্ন ভেদরগঞ্জ পৌরসভার সহ সর্বস্তরেরে জনগণদের।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত