1. admin@ajkernews24bd.com : ajkernews24bd.com :
মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৫:১০ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
আগামী ১৪-২১ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপন জারি। ঢাকা সহ সারাদেশে সরকারি বিধিনিষেধ অমান্য করেই চলছে বাস সহ নানা যানবাহন। ঢাকা সহ সারাদেশে সরকারি বিধিনিষেধ অমান্য করেই চলছে বাস সহ নানা যানবাহন। মামুনুল হকসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা। আরাফাত রহমান কোকো স্মৃতি সংসদ শরীয়তপুর জেলার কমিটি গঠন। দেশের জনগণের নিরাপত্তা, মাদক ও দুর্নিতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নিশ্চিতে যা করার করুন: এনএসআইকে প্রধানমন্ত্রী লকডাউনে শিল্প কারখানা ছাড়াও খোলা থাকবে যেসব প্রতিষ্ঠান। ৫ এপ্রিল থেকে সারাদেশে লকডাউনঃ-ওবায়দুল কাদের। উন্নত চিকিৎসার জন্য শরীয়তপুরের সাবেক মেয়র রফিকুল ইসলাম কোতোয়াল ভারতে, দোয়া চেয়েছেন সকলের কাছে। আবারও করোনায় ৪৫ জনের মৃত্যু, রেকর্ড সংক্রমণ

দেশের জনগণের নিরাপত্তা, মাদক ও দুর্নিতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নিশ্চিতে যা করার করুন: এনএসআইকে প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত: রবিবার, ৪ এপ্রিল, ২০২১
  • ৩০ বার পড়া হয়েছে

সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, মাদক, দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরকারের জিরো টলারেন্স নীতির কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিতে যা যা করণীয় সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) সদস্যদের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রোববার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) নবনির্মিত প্রধান কার্যালয় ভবনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে এ কথা বলেন সরকারপ্রধান শেখ হাসিনা।

এনএসআই সদস্যদের শেখ হাসিনা বলেন, “একটা বিষয় আপনাদের খেয়াল রাখতে হবে যে আমরা জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস, মাদক, দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা করেছি এবং এইসব ব্যাপারে আপনাদের সদা সতর্ক থাকতে হবে, যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে। জনগণের জানমাল রক্ষা করা, জনগণের স্বার্থ রক্ষা করা, জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য যা যা করণীয় সেটা আপনাদের করতে হবে।”

“সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, মাদক বা দুর্নীতির হাত থেকে দেশকে মুক্ত করতে হবে, দেশের মানুষকে বাঁচাতে হবে। সে বিষয়ে আপনাদের অবশ্যই যথাযথ দায়িত্ব পালন করতে হবে। সেটাই আমি আপনাদেরকে অনুরোধ করব।”

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমি চাই এনএসআই এর প্রতিটি সদস্য দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে সততা ও নিষ্ঠার সাথে কর্তব্য পালন করবে। আপনাদের কর্তব্য পালনের সময় যথাযথ শৃঙ্খলা বজায় রেখে আপনারা যদি আপনাদের উপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করতে পারেন,তাহলে অবশ্যই বাংলাদেশ একটি উন্নয়নশীল দেশ হবে ইনশাল্লাহ, ২০৪১ সালের মধ্যে এই বাংলাদেশ হবে উন্নত ও সমৃদ্ধশালী দেশ।”
এনএসআইয়ের আধুনিকায়ন ও উন্নয়নে সরকারের নেওয়া বিভিন্ন উদ্যোগের কথাও অনুষ্ঠানে তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এনএসআই সদস্যদের অক্লান্ত পরিশ্রম ও কর্মকাণ্ডের কারণে দেশের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ‘নিয়ন্ত্রণে রয়েছে’ এবং তার ফলে দেশে অব্যাহত উন্নয়নের পরিবেশ বিরাজ করছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

মহামারী করোনা ভাইরাস এখন বিশ্বব্যাপী একটি বিরাট সমস্যা, সে কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আবার নতুন করে দ্বিতীয় দফায় এই করোনা দেখা দিয়েছে। এই করোনা ব্যবস্থাপনাতেও আপনারা অতীতে অত্যন্ত পরিশ্রম করেছেন। বর্তমানে এখন যেই অবস্থাটা হচ্ছে, সেখানেও আপনাদের দায়িত্ব পালন করতে হবে।”

তিনি বলেন, মহামারীর মধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অর্থনৈতিক মন্দা দেখা দিলেও বাংলাদেশ তার এখনও অর্থনীতির গতি সচল রাখতে সক্ষম হয়েছে। প্রবৃদ্ধি অর্জনেও অন্যান্য দেশ, বিশেষ করে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলো থেকে অনেক এগিয়ে আছে।

করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে সরকার যেসব নির্দেশনা দিয়েছে, সেগুলোর কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এসব নির্দেশ যাতে যথাযথভাবে পালিত হয়, সেদিকেও সবার দৃষ্টি দিতে হবে।

দেশের মানুষের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড যেন সচল থাকে, সেজন্য সরকার যথেষ্ট সচেতন রয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “মানুষের জীবনটা আগে। কারণ জীবন যদি না বাঁচে তাহলে আর অর্থনীতিই কি, রাজনীতিই বা কি। কাজেই মানুষের জীবন আগে বাঁচাতে হবে।

“সুতরাং স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধি করা, স্বাস্থ্য সুরক্ষা এবং নিয়ম নীতিগুলো মেনে চলা এবং সেভাবে নিজেকে সুরক্ষিত করে অন্যকে সুরক্ষিত করা। এটা অবশ্যই সকলকে করতে হবে।”

স্বাধীনতার পর জাতীয় নিরাপত্তার ক্ষেত্রে এনএসআই গুরুত্বপূর্ণ একটি সংস্থা ছিল মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “১৯৭৫ সালে জাতির পিতাকে হত্যার পর মার্শাল ল জারি করা হয় এবং একের পর এক সামরিক শাসকেরা ক্ষমতায় আসে এবং এই সংস্থাটির গুরুত্বও অনেকটা হারিয়ে যায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত